নিষেধাজ্ঞা মুক্ত মেসি

 খেলাধুলা ডেস্ক
আপডেট: ২০২০-০৯-১১ , ০৩:১৪ পিএম

নিষেধাজ্ঞা মুক্ত মেসি ছবি: সিটিজেন নিউজ

ক্লাব বার্সেলোনার সঙ্গে দ্বন্দ্বে জড়ানোয় গত কয়েক দিনে অনেক ঝড়-ঝাপ্টা গেছে লিওনেল মেসির উপর দিয়ে। এবার ভালো খবর পেলেন আর্জেন্টাইন সুপারস্টার। গত বছর কোপা আমেরিকার তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে লালকার্ড দেখায় এক ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছিলেন তিনি।

আর্জেন্টাইন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের (এএফএ) সভাপতি ক্লদিও তাপিয়া জানিয়েছেন, মেসির সেই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হওয়ার সময়সীমা পেরিয়ে গেছে। ফলে আসছে অক্টোবরে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের প্রথম ম্যাচেই খেলতে পারবেন এই ফরোয়ার্ড।

কোপা আমেরিকায় রেফারিদের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলায় এর আগে তিন মাসের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছিলেন মেসি। চিলির বিপক্ষে তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে লালকার্ড দেখার পর পদক নিতে যাননি বার্সেলোনা তারকা, যে ম্যাচে ২-১ গোলে জেতে আর্জেন্টিনা। ম্যাচের পর বিস্ফোরক মন্তব্য করে বসেন মেসি। দক্ষিণ আমেরিকান ফুটবল কনফেডারেশনের (কনমেবল) বিরুদ্ধে স্বাগতিক ব্রাজিলকে সুবিধা দেয়ারও অভিযোগ তুলেন তিনি।

মেসি বলেন, পদক নিতে যাইনি। কারণ আমাদের যে অসম্মান করা হয়েছে, সেটি মেনে নিতে পারিনি। তা ছাড়া এই দুর্নীতির অংশ হতে চাই না। আমি প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ। আমি লালকার্ড পাওয়ার মতো ছিলাম না। কারণ, আমরা ভালো ফুটবল খেলছিলাম। আমরা এগিয়েছিলাম কিন্তু, যেমনটি আমি সম্প্রতি বলেছি, দুর্ভাগ্যজনকভাবে এখানে অনেক দুর্নীতি হচ্ছে, আর রেফারিরা। আমরা এই অনুভূতির মধ্য দিয়ে যাচ্ছিলাম যে, তারা আমাদের ফাইনালে উঠতে দেবে না।

সেমিফাইনালে আর্জেন্টিনাকে ২-০ গোলে হারানোর পর ফাইনালে পেরুকে ৩-১ গোলে উড়িয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় ব্রাজিল। মেসি অভিযোগ তুলেন রেফারিরা পক্ষপাতিত্ব করেছেন। এ নিয়ে তিনি বলেন, ব্রাজিলের বিপক্ষে ম্যাচ এবং আজকের (চিলির বিপক্ষে) ম্যাচে আমরা সেরা পারফরর্ম করেছি। কিন্তু, আপনি যদি সচেতন হন তাহলে দেখেছেন কী ঘটেছে। আমি মনে করি এখানে কোনো সন্দেহ নেই যে, দুর্ভাগ্যজনকভাবে এটি (ট্রফি) ব্রাজিলের জন্যই প্রস্তুত করা হয়েছে। আমার মনে হয়, ভিএআর কিংবা রেফারির কিছুই করার নেই। পেরু প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারে কারণ, তাদের দলের জেতার শক্তি আছে কিন্তু আমি তাদের জন্য কাজটা কঠিনই দেখছি।

এরপরই মেসিকে তিন মাসের নিষেধাজ্ঞা দেয় কনমেবল। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে গত নভেম্বরে ব্রাজিল ও উরুগুয়ের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচ খেলেছেন তিনি। লালকার্ড জনিত এক ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা ছিল শুধু প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচের জন্য। তবে দক্ষিণ আমেরিকান ফুটবল কনফেডারেশন (কনমেবল) জানিয়েছে, মেসিকে কোনো ম্যাচে বসে থাকতে হবে না। ফলে ৮ই অক্টোবর ইকুয়েডরের বিপক্ষে আর্জেন্টিনার ২০২২ বিশ্বকাপ বাছাইয়ের প্রথম ম্যাচেই নামতে পারবেন মেসি। এরপর ১৩ই অক্টোবর বলিভিয়ার বিপক্ষে খেলতে নামবে দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা।