খতমে কোরআন মাহফিল গাউছুল আজমের গাউছিয়্যতের বহিঃপ্রকাশ

 মুহাম্মদ মোবারক আলী
আপডেট: ২০২০-১১-১৮ , ০৩:৪০ পিএম

খতমে কোরআন মাহফিল গাউছুল আজমের গাউছিয়্যতের বহিঃপ্রকাশ ছবি: সিটিজেন নিউজ

চট্টগ্রামের রাউজান কাগতিয়া আলীয়া গাউছুল আজম দরবার শরীফে খতমে কোরআন মাহফিল ও দোয়া মাহফিল করেছে মুনিরীয়া যুব তবলীগ কমিটি বাংলাদেশ। বুধবার (১৮ নভেম্বর) সকালে দরবারের প্রতিষ্ঠাতা খলিলুল্লাহ আওলাদে মোস্তাফা খলিফায়ে রাসূল (দঃ) হযরত শায়খ ছৈয়্যদ গাউছুল আজম রাদিয়াল্লাহু আনহু ও দরবারের মহিয়সী রমণী জামানার রাবেয়া বসরী রূহানী আম্মাজান (রহঃ) এর ঈছালে ছাওয়াব উপলক্ষে এ মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

মাহফিলে বক্তারা বলেন, নবীর যুগের ১৪৫০ বছর পর এসে  প্রিয় রাসুলের প্রেমের রুশনিতে মহান মোর্শেদ হযরত গাউছুল আজম (রাঃ) জগতবাসীকে জাগালেন তাকওয়ার উপলব্ধিতে। কাগতিয়ার নিভৃত পল্লি থেকে যে তরিক্বতের সূচনা হয়েছিল তা আজ গাউছুল আজমের অশ্রুসিক্ত দোয়ার ফলশ্রুতিতে বিশ্বের প্রতিটি প্রান্তরে পৌঁছে গেছে। এ যেন বিন্দু থেকে সিন্ধু। তিল তিল শ্রম সাধনায় গড়ে তুলেছেন বিশ্বজোড়া তরিক্বতের অদ্বিতীয় পাঠশালা কাগতিয়া আলীয়া গাউছুল আজম দরবার শরীফ। বিশ্বের প্রান্তে প্রান্তে সমস্ত দিগন্তে নবীর নূরের ঐশী আলোতে দিশেহারা মানুষকে নিয়ে আসলেন খোদা পাবার সামিয়ানায়। ঘুমন্ত অন্তরাত্মায় দিলেন নবী প্রেমের প্রেরণা। গাউছিয়্যতের কন্ঠে ঘোষনা দিলেন হে যুবক! নামাজ পড়, রোজা রাখ, নবী করিম (দঃ) এর উপর দরূদ পড় মাতৃভূমি শান্ত কর। এ ডাক পৌঁছে গেল পৃথিবীর রন্ধ্রে রন্ধ্রে জনপদে লোকালয়ে ।

ফজরের নামাজের পর হতে কাগতিয়া দরবার শরীফের রওজা পাক, জামে মসজিদ, মসজিদ চত্বর ও আশেপাশের এলাকা আলেম-ওলামা, হাফেজ, তরিক্বতপন্থী, সর্বস্তরের মুসলমানে ভরপুর হয় এবং বাদে নামাজে জোহর মিলাম-কিয়াম শেষে মুনাজাত করা হয়।

মুনিরীয়া যুব তবলীগ কমিটি বাংলাদেশ এর সিনিয়র সহ-সভাপতি প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আবুল মনছুর এর সভাপতিত্বে মাহফিলে বক্তব্য রাখেন মাওলানা মোহাম্মদ কাজী ঈসমাইল, ছিবগাত উল্লাহ মোহাম্মদ আরিফ, আলহাজ্ব মোহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম, আলহাজ্ব মোহাম্মদ হাসান, আলহাজ্ব দ্বীন মোহাম্মদ, আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইউনুস কোম্পানি, আলহাজ্ব মোহাম্মদ মিজান, আলহাজ্ব মোহাম্মদ মাহমুদুল্লাহ প্রমূখ ।

খতমে কোরআন মাহফিল শেষে বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর শান্তি, দেশের অগ্রগতি ও সার্বিক কল্যাণ কামনা করে মুনাজাত পরিচালনা করা হয় ।